আন্তর্জাতিক

জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিল যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নোংরা রাজনৈতিক পক্ষপাতের অভিযোগ তুলে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল ত্যাগ করল যুক্তরাষ্ট্র।

বুধবার সংবাদমাধ্যম বিবিসির একটি প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওর সঙ্গে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নিয়ে কাউন্সিল ত্যাগের বিষয়টি জানান।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মানবাধিকার রক্ষার এ কাউন্সিলকে ‘মানবাধিকারের দুর্বল রক্ষক’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

নিকি হ্যালির দাবি, কপট ও স্বার্থপরায়ণ সংস্থাটি মানবাধিকারকে প্রহসনে পরিণত করেছে।

এর আগে গত বছর জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিলের বিরুদ্ধে ‘চরম ইসরায়েলবিরোধী’ বলে অভিযোগ তুলেছিলেন নিকি হ্যালি।

যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছে ইসরায়েল।

২০০৬ সালে জাতিসংঘের মানবাধিকার কাউন্সিল গঠিত হয়। বিশ্বজুড়ে মানবাধিকার সমুন্নত ও সুরক্ষিত রাখা জেনেভাভিত্তিক এই কাউন্সিলের লক্ষ্য।

ইসরায়েল যুক্তরাষ্ট্রের কাউন্সিল ত্যাগকে সমর্থন জানালেও অধিকারকর্মীরা এ সিদ্ধান্তে হতাশ। জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক হাইকমিশনার জায়েদ রাদ আল হুসেইনও যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তকে ‘হতাশাব্যঞ্জক’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস তার মুখপাত্রের মাধ্যমে এক বিবৃতিতে বলেছেন, এই কাউন্সিলে যুক্তরাষ্ট্রের থাকার বিষয়টিকে অধিকতর শ্রেয় মনে করেন মহাসচিব।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close