আন্তর্জাতিক

আর্থিক সংকটে ভুগছে জাতিসংঘ!

আন্তর্জাতিক বার্তা : জাতিসংঘ চরম আর্থিক সংকটে ভুগছে বলে জানিয়েছেন সংস্থাটির মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস।

জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর কাছে পাঠানো এক চিঠিতে গুতেরেস এ কথা জানান।

চিঠিতে জাতিসংঘের মহাসচিব লিখেন, ‘নিয়মিত বাজেটে সদস্য রাষ্ট্রগুলো দেরিতে বার্ষিক অর্থ দেওয়ায় এ ধরনের সংকটময় পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। এক পঞ্জিকাবর্ষে এত তাড়াতাড়ি আমাদের এমন অর্থ সংকট তৈরি হয়নি। ভবিষ্যতে পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যেতে পারে। এমনকি আমরা শিগগিরই অর্থশূন্য হয়ে পড়তে পারি।’

জাতিসংঘের সূত্র মতে, চলতি বছরের জুনের শেষের দিকে সদস্য রাষ্ট্রগুলোর দেওয়া চাঁদার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ১ দশমিক ৪৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। গত বছরে একই সময়ে এর পরিমাণ ছিল এক দশমিক ৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বেশি।

ওই সূত্র জানায়, ইরাক, মলদোভা, জাপান, লিথুয়ানিয়া ও মেক্সিকো তাদের নির্ধারিত চাঁদা দিয়েছে। কিন্তু ৮১টি রাষ্ট্র এখনো তা দেয়নি।

গুতেরেস চিঠিতে আরও লিখেন, ‘আমি সদস্য রাষ্ট্রগুলোকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাদের চাঁদা পূর্ণাঙ্গভাবে দিতে অনুরোধ জানাচ্ছি। প্রতিষ্ঠানের বর্তমান আর্থিক সংকট দূর করতে তাদের আহ্বান জানাচ্ছি; প্রতিষ্ঠানের সুনামের জন্য যা খুবই জরুরি।’

জাতিসংঘের সদর দফতরের সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে গুতেরেসের মুখপাত্র স্টেফানে ডুজারিক জানান, জাতিসংঘ সম্পূর্ণরূপে বুঝতে পারে যে, কিছু সদস্য রাষ্ট্র বিভিন্ন অর্থবছরের সময়সীমার মধ্যে কাজ করে। কিন্তু এর আগে এ রকম অর্থসংকট তৈরি হয়নি। এক পঞ্জিকাবর্ষের মাঝামাঝিতে এত দ্রুত জাতিসংঘের অর্থ হ্রাস পায়নি।

ডুজারিক আরও জানান, জাতিসংঘ সদস্য দেশগুলোর চাঁদার ওপর নির্ভরশীল। সংস্থাটির সচিবালয় এখন তাদের ব্যয় কমানোর উপায়ের দিকে নজর দিতে পারে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close