আইন-আদালতআলোচিতগাজীপুরসারাদেশ

কালীগঞ্জে গৃহবধূকে মারধর ও শ্লীলতাহানী: আসামি গ্রেপ্তার ও চার্জশিট দাখিল

বার্তাবাহক ডেস্ক : কালীগঞ্জের তুমুলিয়া এলাকায় এক গৃহবধূকে মারধর ও শ্লীলতাহানীর ঘটনায় অভিযুক্ত সজিব আকন্দকে (৩৫) গ্রেপ্তার ও অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৬ জুন) গ্রেপ্তার আসামি ও মামলার অভিযোগপত্র আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কাপাসিয়া মোড় এলাকায় ভুক্তভোগী গৃহবধূকে মারধর ও শ্লীলতাহানীর ঘটনা ঘটে।

গ্রেপ্তার সজিব আকন্দ তুমুলিয়া এলাকার বজর উদ্দিন আকন্দের ছেলে।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ ওই এলাকার অহিদ মোল্লার স্ত্রীর।

ভুক্তভোগী গৃহবধূ বলেন, আসামী সজিবের সঙ্গে আমাদের জমি সংক্রান্ত বিরোধসহ বিভিন্ন বিষয়ে শত্রুতা চলছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আমার ছোট মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে অন্য মেয়েদের উপ-বৃত্তির টাকা উত্তলোনের জন্য কাপাসিয়া মোড় এলাকায় নবিলের দোকানে যাই। সে সময় আসামি সবজি আমার গতিরোধ করে শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাথারী ভাবে মারধর করে এবং আমার পরনের কাপড় টেনে হেচড়ে শ্লীলতাহানী করে। সে সময় আমার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সজিব আমাকে প্রাণনাশসহ যে কোন ধরেনর ক্ষতি করার হুমকি দিয়ে চলে যায়। সে বিভিন্ন সময় আমার মেয়েদের উত্যক্ত করতো। ওইদিন (বৃহস্পতিবার) রাতে আমি কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে পরে থানায় অভিযোগ দয়ের করি। পরে বৃহস্পতিবার রাতেই পুলিশ সজিবকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক শহিদুল ইসলাম বলেন, ”আহতাবস্থায় ওই গৃহবধূকে বৃহস্পতিবার রাত ৮টা ১৫ মিনিটে তার স্বামী অহিদ মোল্লা হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।”

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) শামীম মিয়া বলেন, বাদী এজাহার দায়ের করলে শনিবার সকালে মামলা নথিভুক্ত করা হয় [মামলা নাম্বার ২৪(৬)২১]। পরে অভিযান পরিচালনা করে আসামি সজিবকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার আসামি সজিবকে শনিবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও মামলার তদন্ত কার্যক্রম সম্পূর্ণ করে অভিযুক্ত সজিবের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close