আলোচিতসারাদেশ

নারী কনস্টেবলের ‘আপত্তিকর ভিডিও’ ভাইরাল, প্রেমিক গ্রেপ্তার

বার্তাবাহক ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম হোয়াটস অ্যাপে গ্রুপ খুলে এক নারী পুলিশ কনস্টেবলের ব্যক্তিগত ভিডিও ও ছবি ভাইরাল করার অভিযোগে মামলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ফতুল্লা মডেল থানায় ওই নারী কনেস্টেবল তার প্রেমিক হৃদয় খানের বিরুদ্ধে মামলাটি করেন।

পুলিশ রাজধানীর মগবাজার থেকে রাতেই হৃদয় খানকে (২৫) গ্রেপ্তার করেছে। হৃদয় কুমিল্লা জেলার দাউদকান্দি থানার সৈয়দখারকান্দি গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে। তিনি পরিবারের সঙ্গে রাজধানীর রমনা থানার ৮২, মগবাজার এলাকায় থাকেন।

ওই নারী কনেস্টেবল (২৪) নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার চাঁনমারী এলাকার বাসিন্দা। তিনি কক্সবাজার জেলায় কর্মরত। হৃদয় সম্পর্কে আত্মীয় হন বলে ভিকটিম তার মামলায় উল্লেখ করেছেন।

মামলায় নারী কনস্টেবল উল্লেখ করেন, দুই বছর ধরে হৃদয়ের সঙ্গে তার প্রেম-ভালোবাসা চলে আসছে। এর মধ্যে তাদের হোয়াটস অ্যাপে অনেকবার ভিডিও কলে কথা হয়।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে হৃদয় তার স্পর্শকাতর স্থানের ছবি ও ভিডিও দেখেন এবং গোপনে তা রেকর্ড করে রাখে। এছাড়া সরাসরি দেখা হওয়ার পর ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের কিছু ভিডিও ধারণ করে হৃদয়।

পরে সম্পর্কের টানাপোড়েন হলে অনেকের নম্বর সংগ্রহ করে হোয়াটস অ্যাপে ‘বিডি পুলিশ’ নামে গ্রুপ খুলে ওই সব ভিডিও ও ছবি গ্রুপে ছেড়ে দেয় এবং তা ভাইরাল হয়।

ভুক্তভোগী নারী আরও উল্লেখ করেন,গত ২ জুন ছুটি পেয়ে নারায়ণগঞ্জের বাড়িতে এসে বৃহস্পতিবার সকাল ৯টায় হোয়াটস অ্যাপ চালু করে ‘বিডি পুলিশ’ নামক হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে দেখেন, হৃদয় গোপন ও অশ্লীল ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে সংবাদ মাধ্যমকে জানায়, মামলাটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে। রাতে মামলার পরই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এছাড়া পরবর্তী আইনগত কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close