আন্তর্জাতিকআলোচিত

যুদ্ধবিরতির জন্য ফিলিস্তিনিদের শর্ত মেনে নিতে বাধ্য হবে ইসরাইল: হামাস

গাজীপুর কণ্ঠ, আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের অন্যতম মুখপাত্র আব্দুল লতিফ আল-কানু প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেছেন, অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার উপর সর্বাত্মক সামরিক আগ্রাসন সত্ত্বেও যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে প্রতিরোধ সংগ্রামীদের পূর্বশর্ত মেনে নিতে ইহুদিবাদী ইসরাইল বাধ্য হবে।

তিনি সোমবার গাজায় এক বক্তব্যে বলেন, যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠার জন্য সংগ্রামী সংগঠনগুলোর বেধে দেয়া পূর্বশর্ত মেনে না নেয়ার জন্য ইহুদিবাদী ইসরাইল সময়ক্ষেপণ করছে এবং নিজের পরাজয় ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, “তার পছন্দ হোক বা না হোক, আজ হোক কিংবা কাল ইসরাইল সরকারকে প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর পূর্বশর্ত মেনে নিতেই হবে।”

হামাসের মুখপাত্র বলেন, ফিলিস্তিনি সংগ্রামী সংগঠনগুলোর সঙ্গে দিনের আলোতে পেরে না উঠে দখলদার ইসরাইল রাতের অন্ধকারে গাজার বেসামরিক জনগোষ্ঠীকে তার হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করছে। এ ধরনের মানবতাবিরোধী হামলা দখলদার ইসরাইলের পাশবিক ও নৃশংস চরিত্রকে আবারো বিশ্ববাসীর সামনে উন্মোচন করে দিয়েছে।

কানু বলেন, “কিন্তু ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু যদি ভেবে থাকেন তিনি এ ধরনের কাপুরুষোচিত হামলার মাধ্যমে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগ্রামীদের শক্তি খর্ব করা যাবে তাহলে তিনি দিবাস্বপ্ন দেখছেন।”

গাজা উপত্যকার উপর গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে চলা ইসরাইলি পাশবিক হামলায় অন্তত ২৫০ ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন। এ ছাড়া, এই উপত্যকা থেকে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর নিক্ষিপ্ত রকেটের আঘাতে অন্তত ১০ ইহুদিবাদী নিহত হয়েছে। চলমান সংঘাত বন্ধের জন্য যুদ্ধবিরতির আন্তর্জাতিক উদ্যোগ এখন পর্যন্ত সফলতার মুখ দেখেনি।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close