সারাদেশ

গাজীপুরে এক তরুণীসহ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এরশাদ গ্রেফতার

বার্তাবাহক ডেস্ক : গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুদ রানা ওরফে এরশাদকে (৩৪) এক তরুণীসহ গ্রেফতার করেছে গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

বুধবার রাতে ঢাকার বসুন্ধরা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

এর আগে এরশাদের স্ত্রী নাজমুন নাহার রুনি বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে জয়দেবপুর থানায় একটি মামলায় দায়ের করেন।

গ্রেফতার মাসুদ রানা এরশাদ গাজীপুর শহরের রথখোলা এলাকার মৃত আব্দুল হাইয়ের ছেলে। গ্রেফতার তরুণী মনিষা ভাদুরী মেরী গাজীপুর শহরের দক্ষিণ ছায়াবীথির জুয়েল ভাদুরির মেয়ে।

bartabahok

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, বাদী নাজমুন নাহার রুনি গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে মাসুদ রানার সঙ্গে বিয়ে হয়। যৌতুক হিসেবে তাকে ৩০ লাখ টাকার মূল্যেও একটি প্রিমিও মডেলের গাড়িও দেয়া হয়। তাদের সংসারে একটি মেয়ে সন্তানও রয়েছে। বিয়ের পর থেকেই তার স্বামী এরশাদ কারণে অকারণে তাকে অত্যাচার শুরু করে। এর মধ্যে তিনি মনিষা ভাদুরী মেরী নামে এক তরুণীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে তোলেন। পরকীয়ায় বাধা দিলে তাকে মারধরসহ নানাভাবে নির্যাতন শুরু করে স্বামী। গত ৮ জুলাই তার স্বামী আরও ৫০ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে। দিতে অস্বীকার করলে এলোপাতাড়ি মারধর করতে থাকে। পরকীয়ার জের ধরে গত ১১ জুলাই আবারও তামে বেধম মারধর করে তার স্বামী। পরে তিনি স্বামীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাবার বাড়িতে চলে যান।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- মনিষা ভাদুরী মেরীর বোন জয় ভাদুরী (২৮) মা রিনা আচার্য (৫০) ও গাজীপুর সদরের বাড়িয়া এলাকার কামরুল ইসলাম (৩৮)।

গাজীপুর জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি)ওসি আমির হোসেন সাংবাদিকদের জানান, ঢাকার বসুন্ধরা এলাকায় বুধবার রাতে অভিযান চালিয়ে মাসুদ রানা এরশাদ এবং মনিষা ভাদুরী মেরীকে গ্রেফতার করে গাজীপুর গোয়েন্দা পুলিশ। পরে বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে তাদের গাজীপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close