অর্থনীতি

বিকাশে দেওয়া যাবে পল্লী বিদ্যুতের বিল

বার্তাবাহক ডেস্ক : পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকরা এখন থেকে বিকাশ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে যেকোন স্থান থেকে যেকোন সময় বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

সোমবার রাজধানীর একটি হোটেলে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এক অনুষ্ঠানে বিকাশের এ সেবার উদ্বোধন করেন।

মোস্তাফা জব্বার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলেন, সহজ ও নিরাপদ লেনদেনের জন্য সরকার প্রতিটি ক্ষেত্রে ডিজিটাল পেমেন্ট ব্যবস্থা চালু করে একটি ‘ক্যাশলেস সোসাইটি’ গড়ার প্রয়াস চালাচ্ছে। টেলিটকের কারিগরি সহায়তায় বিকাশের মাধ্যমে ‘পে বিল’র মতো ডিজিটাল পেমেন্ট এই প্রক্রিয়াকে আরো গতিশীল করবে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘বাংলাদেশের যে ক’টি তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান আমার পছন্দের, তার মধ্যে বিকাশ সবার উপরে। বাংলাদেশের মতো কৃষিনির্ভর দেশের তথ্যপ্রযুক্তিতে সফল প্রতিষ্ঠান পাওয়া ভাগ্যের বিষয়। সারা বিশ্বের কাছে তথ্যপ্রযুক্তি খাতে স্বনামধন্য হয়েছে বিকাশ। ডিজিটাল বাংলাদেশের সুবিধা গ্রামের মানুষের কাছে পৌঁছাতে বিকাশের ভূমিকা নিঃসন্দেহে প্রসংশিত। বাংলাদেশে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সেবা বলতে বিকাশকেই বোঝায়।

বিল পরিশোধ করতে গ্রাহককে *২৪৭# ডায়াল করে মেন্যু থেকে ৫ নম্বর ‘পে বিল’ নির্বাচন করতে হবে। এরপর কিছু ইন্টারঅ্যাকটিভ ধাপ অনুসরণ করে বিল পরিশোধ সম্পন্ন করা যাবে।

শুরুতে বিকাশের ইউএসএসডি মেনু থেকে এই সেবা নেওয়া যাবে। পরবর্তীতে বিল পেমেন্ট সেবাটি বিকাশ অ্যাপেও অর্ন্তভুক্ত হবে।

সারাদেশে পল্লী বিদ্যুতের দুইকোটিরও বেশি গ্রাহকের বিল পরিশোধ ঝামেলামুক্ত, সহজ, সাশ্রয়ী এবং নিরাপদ করতে সোমবার দেশের বৃহত্তম মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান বিকাশ, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান টেলিটকের কারিগরি সহায়তায় ‘পে বিল’ সেবা চালু করেছে। কেবল বিল পরিশোধই নয়, পল্লী বিদ্যুতের গ্রাহকরা বিদ্যুৎ বিলের পরিমাণও তাদের বিকাশ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে চেক করতে পারবেন।

বিকাশের চিফ কর্মশিয়াল অফিসার মিজানুর রশীদ নতুন সেবা সর্ম্পকে বলেন, এই সেবার কল্যাণে গ্রাহকরা সহজে ও সাচ্ছন্দ্যে তাদের ঘরে বসেই বিল দিতে পারবেন। বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য তাদের এখন থেকে আর দূরে কোথাও যেতে হবে না। প্রথম তিনমাস কোন ধরনের চার্জ ছাড়াই বিল পরিশোধ করতে পারবেন। পরবর্তীতে ন্যূনতম একটি চার্জ নেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, বিকাশ অন্যান্য ইউটিলিটি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের বিল প্রদান সেবা সহজ, খরচ সাশ্রয়ী এবং ঝামেলামুক্ত করতে তাদের সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করতে আগ্রহী।

টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাহাব উদ্দিন বলেন, গ্রাহকদের বিল পরিশোধ সেবায় বিকাশকে টেলিটকের সঙ্গী হিসেবে পেয়ে আমরা খুশি। এই পদক্ষেপ সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

তিনি আরও বলেন, এখন থেকে গ্রামের মানুষের ব্যাংকে গিয়ে লাইনে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে না। এভাবে নতুন নতুন সেবা প্রদানের মাধ্যমে বাস্তবায়ন হবে সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিকাশের চিফ এক্সর্টানাল অ্যান্ড কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেজর (অব.) জেনারেল শেখ মো. মনিরুল ইসলাম।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এটাও পড়ুন

Close
Close