রাজনীতি

‘খালেদাকে জেলে রাখার পেছনে ভারতীয় হাইকমিশন’: রিজভী

রাজনৈতিক বার্তা : বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে ভারতের ভিসা না দেয়া হলে এটা প্রমাণিত হবে যে তাকে কারাদণ্ড ও জেলে আটকে রাখার পেছনে ভারতীয় হাইকমিশনের ভূমিকা রয়েছে। কারণ, গতকাল একটি দৈনিক পত্রিকায় দিল্লির একটি উচ্চপর্যায়ের সূত্র থেকে উদ্ধৃতি দিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে, খালেদা জিয়ার আইনি পরামর্শক লর্ড কার্লাইলকে ভারতে ঢোকার অনুমতি না দিতে দিল্লিতে জোরালো সুপারিশ পাঠিয়েছে ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন।’

রোববার নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন এ কথা বলেন তিনি।

এসয় রিজভী বলেন, ‘লর্ড কার্লাইল চলতি সপ্তাহেই দিল্লি সফর করবেন। আর ১৩ জুলাই ফরেন করেসপন্ডেন্ট ক্লাবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা ও কারাদণ্ডের বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে তার বক্তব্য দেয়ার কথা। যদি ঢাকার হাইকমিশনের সুপারিশের কারণে লর্ড কার্লাইলকে ভিসা না দেয়া হয়, তাহলে এটা প্রমাণিত হবে মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে কারাদণ্ড দিতে তাদের নেপথ্য ভূমিকা রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের একটি ভোটারবিহীন সরকারকে টিকিয়ে রাখতে ভারতীয় হাইকমিশন কর্মকর্তাদের ভূমিকা উপনিবেশিক শাসকদের মতো। যেন তারা বাংলাদেশে তাদের প্রভুদের টিকিয়ে রাখতে উঠেপড়ে লেগেছে। ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশন যদি উপনিবেশিক শাসনের গভর্নর হাউসে পরিণত হয়ে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে হস্তক্ষেপ করতে থাকে, তাহলে বুঝতে হবে দেশের স্বাধীনতা বিপন্ন ও সার্বভৌমত্ব অতি দুর্বল।’

রিজভী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের কাছে আমাদের জিজ্ঞাসা, ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন বাংলাদেশের এখন কোন দলের মুখপাত্র? দেশের জনগণ জানে ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশন কি ভূমিকা পালন করছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শাহজাদা মিয়া, সহ-দপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমেদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য শামছুজ্জামান সুরুজ, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

আরও দেখুন

এরকম আরও খবর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close